UK new rule, living wage' but cuts working-age benefits



ব্রিটেনের নতুন বাজেটে ওয়ার্কিং এজ বেনিফিট বাতিল : লিভিং ওয়েজ বেনিফিট চালু হচ্ছে
  
 চ্যান্সেলর জর্জ ওসবর্ণ আজ পার্লামেন্টে তার সামার বাজেট পেশ করেছেন। ১৯ বছরের মধ্যে কনজারভেটিভ সরকারের এই প্রথম বাজেট। নানা কারণে দেশে বিদেশে এই বাজেট নিয়ে রয়েছে ব্যাপক আগ্রহ ও কৌতুহল। চ্যান্সেলর ওসবর্ন তার বাজেট বক্তৃতায় বলেছেন, ব্রিটেন হলো দ্রুত অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি অর্জনের দেশ এবং আমাদের অর্থনীতি এ বছর ২.৪% হারে বৃদ্ধি পাচ্ছে।

চ্যান্সেলর জর্জ ওসবর্ন তার বাজেট বক্তৃতায় একেবারে শেষ মুহুর্তে এসে নতুন চমকও নিয়ে এসেছেন। সেখানে তিনি “ওয়ার্কিং এজ” বেনিফিট বাতিল করে নতুন করে “লিভিং ওয়েজ” বেনিফিট চালুর কথা বলেছেন যা আগামী বছর এপ্রিল মাস থেকে চালু হবে। চ্যান্সেলর ওসবর্ন তার এই নতুন লিভিং ওয়েজে বলেছেন, যারা কম আয়ের মানুষ, গরীব এবং দারিদ্রতার মধ্যে আছেন, তাদের জন্যে তিনি এই পরিকল্পনা করেছেন এবং “যাদের বয়স ২৫ তারা আগামী এপ্রিল থেকে নতুন বাধ্যতামূলক এই ন্যাশনাল লিভিং ওয়েজ ঘন্টায় ৭.২০ পাউন্ড করে বেতন পাবেন।“ যেখানে চ্যান্সেলর আগেই বলেছিলেন তিনি দায়বদ্ধ আগামী ২০২০ সালের মধ্যে ন্যাশনাল মিনিমাম ওয়েজ ঘন্টায় ৯ পাউন্ড করার এবং এই পার্লামেন্টে এ বছর ৮পাউন্ড করার প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।

চ্যান্সেলর ওসবর্ন ইতোমধ্যেই প্রতিশ্রুতিবদ্ধ যা বাজেটেও উল্লেখিত আছে, ওয়েল ফেয়ার বাজেট থেকে ১২ বিলিয়ন সেভিংস করার, আগামী চার বছর পর্যন্ত ওয়ার্কিং এজ বেনিফিট ফ্রিজ রাখার এবং প্রথম দুই সন্তানের জন্য ট্যাক্স ক্রেডিট সীমিত রাখার এবং ১৮ ও ২১ বছর বয়সীদের হাউজিং বেনিফিট বাতিল, কম আয়ের মানুষদের সংখ্যা আনুপাতিকহারে কমিয়ে আনা ইত্যাদি মেজর এই চেঞ্জ করতে যাচ্ছেন।

এক নজরে সামার বাজেটঃ-

০১) বর্তমানে বাজেটের মূল থিম হলো “ব্রিটেন ওপেন ফর বিজনেস”

০২) ২০১৭-২০১৮ থেকে ফ্যামিলি এলাউন্স, ইনহ্যারিট্যাক্স এলাউন্স যাতে মৃত্যুর পরে বাড়ী পরিবারের নিকটজনের কাছে বা সন্তানদের কাছে স্থানান্তর করা যায়

০৩) বর্তমানের ৩২৫,০০০ পাউন্ডের ইনহ্যারিট্যান্স ট্যাক্স এলাউন্সের সাথে স্বামী, স্ত্রী বা সিভিল পার্টনারের মধ্যে ২০২০ সালের মধ্যে ১ মিলিয়ন পর্যন্ত ট্যাক্স ফ্রি এলাউন্স

০৪) যে সব ষ্ট্যাট ২ মিলিয়ন পর্যন্ত সে ক্ষেত্রে ট্যাক্স এলাউন্স ধীরে ধীরে বাতিল

০৫) ১৫০,০০০ হাজার পাউন্ড পর্যন্ত আয়ের ট্যাক্স ফ্রি যা ২০১৬ সালের এপ্রিল থেকে কাট হবে

০৬) এপ্রিল ২০২০ সাল থেকে মর্গেজ ইন্টারেস্ট এর ট্যাক্স রিলিফ কর্তন করা হবে ৪০% থেকে এবং ৪৫% থেকে ২০% পর্যন্ত করা হবে

০৭) নতুন ন্যাশনাল লিভিং ওয়েজ চালু এবং ২৫ বছর বয়সীদের থেকে ৭.২০ পাউন্ড ঘন্টায় যা ২০২০ সালের মধ্যে ন্যাশনাল মিনিমাম ওয়েজ হবে ৯ পাউন্ড

০৮) ২০১৭ সাল থেকে তিন সন্তানের পরিবার এবং চার বছর বয়সী পরিবার সপ্তাহে ৩০ ঘন্টা চাইল্ড কেয়ার ফ্রি পাবেন

০৯) হাউস হল্ড ইনস্যুরেন্স ৬% থেকে ৯.৫০% বৃদ্ধি পাবে

১০) এপ্রিল ২০১৬ থেকে বিনিয়োগ ও উদ্যোক্তারা ৫,০০০ পাউন্ড পর্যন্ত ট্যাক্স ফ্রি ডিভিডেন্ড এলাউন্স পাবেন

১১) ২০১৬-২০১৭ থেকে ৪০পেনি – তথা ৪০% ট্যাক্স যারা দেন তাদের ৪৩,০০০ পাউন্ড হবে

১২) পাবলিক সেক্টর ওয়ার্কারদের পে আগামি চার বছর পর্যন্ত ১% হারে ফ্রিজ

১৩) ব্যাংক লেভি ধীরে ধীরে কমবে আগামী বছর থেকে এবং চ্যান্সেলর বলেছেন ব্যাংক প্রফিটের ৮% চার্জ করবেন

১৪) চ্যান্সেলর বলেছেন, তিনি অধিক চাকুরীর সুযোগ সৃস্টি করে ব্যবসায়ীদের ইনসেনটিভ দিয়ে ধীরে ধীরে বেতন বৃদ্ধি করে ট্যাক্স ক্রেডিট রিমুভ করে দিবেন, এবং ২০২০ সালের মধ্যে কর্পোরেট ট্যাক্স ১৮% কাট করবেন।

চ্যান্সেলর আশা করছেন এ বছর অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি ২.৪% হারে বৃদ্ধি পাবে যা গত মার্চে কিছুটা নেমে দাড়িয়েছিলো ২.৫%, আর ে বছর পাবলিক সেক্টর ফাইন্যান্সে ডেফিসিট ধরা হয়েছে ৬৯.৫ বিলিয়ন যা গত বছর ৭৫ বিলিয়নের চেয়ে কিছুটা কম।
 
Top